কাজের স্বীকৃতি পেলেন অতিরিক্ত আইজিপি মোখলেসুর

0
11

নারী ও কন্যা শিশুর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে অনন্য অবদানের জন্য ‘জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিল’ চ্যাম্পিয়ন মনোনীত হয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি (প্রশাসন ও অপারেশনস) মো. মোখলেসুর রহমান।

- Advertisement -

পুলিশ সদর দফতরের জনসংযোগ কর্মকর্তা কামরুল আহছান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ইউএনএফপিএ নারী ও কন্যা শিশুর প্রতি নির্যাতন প্রতিরোধে অসামান্য অবদানের জন্য বিশ্বব্যাপী ১৬টি দেশের ১৬ জনকে চ্যাম্পিয়ন মনোনীত করে। তাদের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি মো. মোখলেসুর রহমানকে মনোনীত করা হয়।

পুলিশ সদর দফতর থেকে পাঠানো এক বার্তায় বলা হয়, পেশাদার পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে মোখলেসুর রহমান তার দীর্ঘ কর্মজীবনে জেন্ডার ভিত্তিক নির্যাতন প্রতিরোধে অসামান্য অবদান রেখেছেন। তিনি বহু বছর ধরে জেন্ডার বেইজড ভায়োলেন্স যেমন- বাল্য বিবাহ, নারী নির্যাতন ইত্যাদি বিষয়ে জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন। সে পরিপ্রেক্ষিতে ইউএনএফপিএ তাদের কার্যক্রমের সঙ্গে তাকে সম্পৃক্ত করেন।

মোখলেসুর রহমান ২০১৫ সাল থেকে ইউএনএফপিএ’র কার্যক্রমের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে যুক্ত থেকে নারী ও কন্যা শিশুর প্রতি নির্যাতন প্রতিরোধে কাজ করছেন।

তিনি জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিলের সহায়তায় পরিচালিত জেন্ডার বেইজড ভায়োলেন্স’র একজন পরামর্শক। তার পরামর্শে দেশের ১৫টি থানায় ইউএনএফপিএ’র সহায়তায় পাইলট প্রকল্প হিসেবে ‘নারী সহায়তা ডেস্ক’ স্থাপিত হয়েছে। তিনি গরীবের জন্য পুলিশিং ব্যবস্থা গড়ে তোলার প্রবক্তা।

উল্লেখ্য, ‘নারী সহায়তা ডেস্ক’র মাধ্যমে নির্যাতনের শিকার নারী ও কন্যা শিশুর অভিযোগের বিষয়ে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হয় এবং এক্ষেত্রে কঠোর গোপনীয়তা রক্ষা করা হয়। এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশই প্রথম বিভিন্ন থানায় ‘নারী সহায়তা ডেস্ক’ চালু করে।

(Visited 1 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here