মাশরাফি-তামিমদের বিপক্ষে কাল প্রস্তুতি ম্যাচ ওয়েস্ট ইন্ডিজের

0
8

কেউ বলে ‘গা গরমের খেলা’। আবার অনেকে ‘ওয়ার্ম আপ’ ম্যাচও বলেন। কারো বা মত-এটা প্রস্তুতি ম্যাচ। যে নামেই ডাকা হোক না কেন, আসল কথা হলো-একটা দল ভিনদেশে খেলতে গেলে সেখানকার পরিবেশ-প্রেক্ষাপট ও পরিস্থিতির সাথে মানিয়ে নিতে যে ম্যাচ খেলে সেটাকেই ক্রিকেটীয় পরিভাষায় বলা হয় ‘প্র্যাকটিস ম্যাচ’। তার নানা নাম। অর্থাৎ নামেই প্র্যাকটিসের কথা উল্লেখ আছে।

- Advertisement -

যে ম্যাচে জয়-পরাজয় ছাপিয়ে প্রস্তুতি, একাদশ সাজানো এবং পরিবেশ-পরিস্থিতির সাথে খাপ খাইয়ে নেয়া এবং নিজেদের মূল ম্যাচের জন্য প্রস্তুত করাই আসল কথা। বলার অপেক্ষা রাখে না, টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে চট্টগ্রামের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামেও তিনদিনের গা গরমের ম্যাচ খেলেছিল ক্যারিবীয়রা। আর এখন টেস্ট সিরিজ শেষে ওয়ানডে সিরিজের ঠিক আগে এক ওয়ানডে প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলবে তারা। কাল বৃহস্পতিবার বিকেএসপিতে হবে সেই গা গরমের খেলা।

সাধারণতঃ এমন সব অনুশীলন ম্যাচে স্বাগতিক বোর্ড সভাপতি একাদশ বা বোর্ড একাদশ খেলে। কালকের সেই ম্যাচেও স্বাগতিক দলের নাম বিসিবি একাদশ। তারপরও ঐ ম্যাচটি এখন আর শুধুই প্র্যাকটিস ম্যাচ নয়। এ ম্যাচের তাৎপর্য গেছে পাল্টে। এটা আর অন্য আট দশটা প্রস্তুতি, গা গরম বা ওয়ার্ম আপ ম্যাচ নয়।

ভারত, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা বা ওয়েস্ট ইন্ডিজ-প্রতিপক্ষ যেই হোক না কেন, দেশের ক্রিকেট অনুরাগিদের এসব প্রস্তুতি ম্যাচ নিয়ে তেমন উৎসাহ-আগ্রহ থাকে না। কিন্তু কালকের ম্যাচ নিয়ে সবার আগ্রহ প্রবল।

কারণ এ ম্যাচে বিসিবি একাদশের হয়ে খেলবেন এবং দলকে নেতৃত্ব দেবেন জাতীয় ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। শুধু তাই নয়, দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবালও খেলবেন এ ম্যাচে।

৭২ ঘন্টা পরই তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু, তাহলে মাশরাফি আর তামিমের এ প্রস্তুতি ম্যাচ খেলা কেন? নিশ্চয়ই প্রশ্ন জাগছে। নাহ, বিশেষ কোনো কারণ নেই। উদ্দেশ্য, মাশরাফি আর তামিম দুজনকেই তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের আগে ম্যাচ প্র্যাকটিসের সুযোগ করে দেয়া।

ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি জাতীয় দলের হয়ে টেস্ট, টি-টোয়েন্টি খেলেন না। ঘরোয়া প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের দুই আসর জাতীয় লিগও বিসিএলেও অংশ নেন না। ফলে সেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে খেলার পর আর মাঠে নামা হয়নি তার। সেজন্যই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের আগে তাকে ম্যাচ প্র্যাকটিস করানোর একটা ক্ষেত্র তৈরি করে দেয়া হয়েছে।

আর প্রথমে এশিয়া কাপ খেলতে গিয়ে হাতের কব্জিতে ব্যথা পাওয়া এবং পরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের আগে নেটে ব্যাটিং করতে গিয়ে পেটের মাংস পেশিতে টান পড়ায় আড়াই মাস মাঠের বাইরে ছিলেন তামিম। তিনি নিজ ইচ্ছেতেই এ ম্যাচ খেলতে চেয়েছেন। তারও উদ্দেশ্য একটাই, ওয়ানডে সিরিজের আগে নিজেকে ঝালাই করে নেয়া।

শুধু তামিম-মাশরাফি নন। উইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের দলে ডাক পাওয়া তিন স্পেশালিষ্ট ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ মিঠুন, পেসার রুবেল হোসেন ও বাঁহাতি স্পিনার নাজমুল অপুও আছেন বিসিবি একাদশের এই দলে।

একইভাবে টেস্ট সিরিজে চরম ব্যর্থ ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে যেসব ওয়ানডে স্পেশালিষ্ট যুক্ত হয়েছেন, তারাও হয়তো বৃহস্পতিবারের প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলে নিজেদের তৈরি করার চেষ্টায় থাকবেন। তাই প্রস্তুতি ম্যাচেও থাকছে একটা লড়াই-প্রতিদ্বন্দ্বিতার আভাস।

(Visited 1 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here