উত্তর–পূর্ব ভারতে ভোটের প্রচারে মোদি-অমিত

0
44

Sharing is caring!

- Advertisement -

উত্তর–পূর্ব ভারতে লোকসভা ভোটের প্রচারে নেমে পড়ছে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মনিপুর আর আসাম সফরে যাচ্ছেন। আগামীকাল বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ যাচ্ছেন ত্রিপুরায়।

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের এখনো অন্তত তিন মাস বাকি। তার আগেই বিজেপি পুরোদমে ভোটের প্রচারে নেমে পড়ছে। বিজেপি ক্ষমতা ধরে রাখতে মরিয়া।

মনিপুরের জঙ্গি সংগঠনগুলো ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর সফরকে বয়কটের ডাক দিয়ে ‘জনতা কারফিউ’ জারি করেছে। সেই বয়কটকে উপেক্ষা করেই আজ মোদি বিজেপি শাসিত মনিপুরে যাচ্ছেন। তাঁর সফর উপলক্ষে অভূতপূর্ব নিরাপত্তাব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে ।

মনিপুরের রাজধানী ইম্ফলে একটি জনসভায় ভাষণ দেবেন মোদি। এ ছাড়া ভারত-মিয়ানমার সুসংহত স্থলবন্দর, ডোলাইথাবি ড্যাম, হ্যান্ডলুম এস্টেট প্রভৃতি প্রকল্পও তিনি শুরু করবেন। ইম্ফল থেকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী আসামের বাঙালি–অধ্যুষিত শিলচরে যাবেন। সেখানে বিজেপির ‘বিজয় সংকল্প সমাবেশে’ তিনি ভাষণ দেবেন ।

মোদির আসাম সফরের আগেই ৬ দফা প্রশ্ন তুলে তাঁকে বিব্রত করার চেষ্টা করছে কংগ্রেস। মোদি ২০১৪ সালে একই মাঠে ভাষণ দিতে গিয়ে ছয়টি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। সেই প্রতিশ্রুতি পালনের বিষয়ে কংগ্রেস জানতে চেয়েছে।

শিলচর থেকে কংগ্রেস নেতা পার্থরঞ্জন চক্রবর্তী মুঠোফোনে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী আসছেন। খুব ভালো কথা। কিন্তু তাঁর দেওয়া প্রতিশ্রুতির কী হলো, সেটা জানিয়ে নিজের চেয়ারের মর্যাদা রক্ষা করুন মোদি।’

বিজেপি অবশ্য কংগ্রেসের কথায় কান দিতে নারাজ। তারা ব্যস্ত প্রধানমন্ত্রীর সফরকে সফল করতে। ইতিমধ্যেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল, প্রদেশ বিজেপি সভাপতি রঞ্জিত দাস শিলচরে প্রস্তুতি পর্যবেক্ষণে পৌঁছে গেছেন।

বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ মোদির পাশাপাশি শনিবার দুদিনের সফরে ত্রিপুরা যাচ্ছেন। দলের প্রদেশ কর্মকর্তাদের পাশাপাশি পৃষ্ঠাপ্রমুখদের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে তিনি যোগ দেবেন।

ভারতে ভোটার তালিকার প্রতিটি পাতায় ৩০টি করে ভোটারের নাম থাকে। এপিঠ-ওপিঠ মিলিয়ে ৬০। এই ৬০ জনের জন্য একজন করে নেতা থাকেন। এই নেতার পদটির নাম পান্নাপ্রমুখ বা পৃষ্ঠাপ্রমুখ।

বিজেপির মুখপাত্র নবেন্দু ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, ত্রিপুরায় ৪২ হাজার পৃষ্ঠাপ্রমুখ আছেন তাঁদের। তাঁরা তো আসবেনই। সঙ্গে আসবেন সাধারণ ভোটাররাও।

আগরতলার বিবেকানন্দ স্টেডিয়ামে লক্ষাধিক মানুষের জনসমাবেশ হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। সেই সঙ্গে দাবি করেন, শনিবার থেকেই তাঁদের লোকসভা ভোটের প্রচারও শুরু হচ্ছে।

ভারতে লোকসভার আসনসংখ্যা ৫৪৫টি। এর মধ্যে ২৫টিই উত্তর–পূর্ব ভারতে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here