সাইবার ক্রাইম ঠেকাতে নতুন উপায়

0
77

Sharing is caring!

- Advertisement -

ক্রিমিনাল কেস তদন্তের সুবিধার জন্য সব সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলোকে ‘ফটো ডিএনএ’ ব্যবহার করতে বলেছে ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা (সিবিআই)। ‘ফটো ডিএনএ’ যে কোন ছবিতে একটি ডিজিটাল সিগনেচার তৈরি করে। ডুপলিকেট ছবির উৎস খুঁজে পেতে কাজে লাগে এই প্রযুক্তি। ২০০৯ সালে ‘ফটো ডিএনএ’ প্রযুক্তি নিয়ে এসেছিলো মাইক্রোসফট। ইতিমধ্যেই গুগল, ফেসবুক ও টুইটার এ প্রযুক্তি ব্যবহার করায় সহজেই শিশু পর্ণ অপরাধ দমনে সাফল্য পেয়েছে।

সম্প্রতি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে প্রকাশিত এক রিপোর্টে জানানো হয়েছে, গত মাসে সিআরপিসি ৯১ নম্বর ধারায় সব সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মিগুলোকে নোটিস পাঠিয়েছে সিবিআই। এই নোটিসে সব সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মকে ছবিতে ‘ফটো ডিএনএ’ ব্যবহার করে সেই তথ্য গোয়েন্দা সংস্থার হাতে তুলে দিতে বলেছে।

তবে এই বিষয়ে কোন প্রশ্নের উত্তর দেয়নি সিবিআই। প্রসঙ্গত অপরাধ দমনের নামে এই প্রযুক্তি ব্যবহার শুরু হলে মানুষের ব্যক্তিগত গোপনীয়তায় হস্তক্ষেপ করা হবে।

‘ফটো ডিএনএ’ এর মাধ্যমে যে কোন ছবিতে একটি ডিজিটাল স্বাক্ষার তৈরি হয়। এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়া শিশু পর্নের উৎস খুঁজে পাওয়া সম্ভব।

মাইক্রোসফটের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, ‘শুধুমাত্র শিশু পর্ণ খুঁজে পেতেই এই প্রযুক্তি ব্যবহার করা যাবে।’ তবে এই প্রযুক্তিতে ফেস রিকগনিশান ব্যবহার করে মানুষ চিহ্নিত করা যায় না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here