পঞ্চগড়ে তিন দিনব্যাপী বারুনী স্নানোৎসব শুরু

পঞ্চগড় প্রতিনিধি : চৈত্রের মধুকৃষ্ণ ত্রয়োদশী তিথি উপলক্ষে পঞ্চগড় জেলার বোদা উপজেলায় করতোয়া নদীর উত্তর মুখী স্রোতে শুরু হয়েছে সনাতন ধর্মালম্বীদের তিন দিনব্যাপী বারুনী স্নানোৎসব ও মেলা।

রবিবার (২৬ মার্চ) সূর্যোদয়ের পর থেকেই জেলার বোদা উপজেলার কাজলদিঘী কালিয়াগঞ্জ ইউনিয়নের বোয়ালমারি এলাকায় করতোয়া নদীতে এই স্নানোৎসব শুরু হয়।

পঞ্চগড় সহ উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন জেলার সনাতন ধর্মালম্বী হাজার হাজার নারী পুরুষ পাপ মুক্তি ও পূণ্যের আশায় করতোয়া নদীর উত্তরমুখী স্রোতে দীর্ঘ তিন শত বছর ধরে গঙ্গা স্নান করে আসছেন।

ব্রিটিশ আমল থেকে শুরু হওয়া চৈত্রের মধুকৃষ্ণ ত্রয়োদশী তিথিতে সনাতন ধর্মালম্বীরা এখানে গঙ্গা স্নানের পাশাপাশি পুর্বপুরুষদের আত্মার শান্তি কামনা ও নিজেদের পুণ্যলাভের জন্য পূজা অর্চণা করে থাকেন।

ঠাকুরগাঁও জেলার গড়েয়া থেকে পূন্যস্নান করতে আসা জগদীশ চন্দ্র রায় বলেন, এখানে নিয়মিত ভাবে ১২ বছর স্নান করতে পারলে একবার গয়া-কাশি যাওয়ার সমান পূন্য লাভ করা যায়, তাই প্রতি বছর আমরা এই বারুনী মেলায় স্নান করতে আসি।

পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া থেকে আসা অনিতা রানী বলেন, এখানে এসে স্নান করলে আমাদের বাবা-মায়ের পাপ মোচন হয় এবং বিপুল পূন্য লাভ করা যায়।

কাজলদিঘী কালিয়াগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আলাউদ্দীন আলাল বলেন, স্নান উপলক্ষে আয়োজিত বারুনী মেলায় শুধু সনাতন ধর্মালম্বীরাই নয় মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষেরও ব্যাপক সমাগম ঘটে। মেলার নিরাপত্তার স্বার্থে ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম পুলিশ, আনসার সদস্য ও বারুনী মন্দিরের পক্ষ থেকে শতাধিক স্বেচ্ছাসেবক নিয়েজিত রাখা হয়ে হয়েছে। এছাড়া বোদা থানা পুলিশের সদস্যরা মেলার নিরাপত্তায় সহযোগিতা করছেন।

এদিকে স্নান উপলক্ষে করতোয়া নদীর দুই পাড়ে বসেছে তিন দিনব্যাপী বারুনী মেলা।

Facebook Comments





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *