বিদায় ২০১৬, স্বাগত ২০১৭।।

0
287

Sharing is caring!

জীবনের প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তির ব্যবধান নিয়েই শনিবার দিন পেরিয়ে ঘড়ির কাঁটায় রাত ১২টাও পেরিয়ে গেল। এল রবিবার, সঙ্গে নিয়ে এল নতুন ইংরেজি বছর ২০১৭। শেষ হলো ঘটনাবহুল একটি বছর ‘২০১৬’। এরপর যে নতুন সময় এসে দাঁড়ালো তাতে রয়েছে জীবনের নব উদ্যমে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা। সময়ই বহমান জীবনের প্রেরণা। দুয়ারে পেরিয়েছে ইংরেজি নববর্ষ। রবিবার ১ জানুয়ারি। স্বাগতম খ্রিস্টীয় নতুন বছর ‘২০১৭’।

- Advertisement -

সময়ই নিরন্তর দেখিয়ে যায় স্বপ্ন পূরণের লোভ। তাই নতুন বছরে নিঃস্ব মানুষ পূর্ণতার স্বপ্নে বিভোর হবে। হাহাকার বুকে কেউ দেখবে আনন্দের কল্লোলিত স্বপ্ন। রোগী সুস্থতার, ব্যর্থ মানুষের সাফল্যে স্বপ্ন দেখার বীজও এই নতুন বছরেই বপিত আছে।

যদিও ২০১৬ সালে দেশের রাজনৈতিক অঙ্গণে উদ্বেগজনক অস্থিরতা দেখা যায়নি। নতুন বছরে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে সদ্ভাবের বন্ধনটি আরও দৃঢ় হোক এটাই সবার প্রত্যাশা। তবে বিদায় নেওয়া বছরটির শেষদিনটি দেশবাসীকে বড় ধাক্কায় দিয়েছে। শনিবার (৩১ ডিসেম্বর, ২০১৬) দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত হয়েছেন গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন। নিজ বাড়িতে গুলিবিদ্ধ হয়েছিলেন তিনি। বিদায়ী বছরের শেষ দিনটি তাই ‘রক্তাক্ত’ ধাক্কাই দিয়েছে দেশবাসীকে। নতুন বছরে এ ধরনের হানাহানি, রক্তারক্তি থাকবে না, পুরো বাংলাদেশ সেই প্রত্যাশা বুকে নিয়েই বরণ করে নিয়েছে ইংরেজি ২০১৭ সালকে।

বাংলাদেশের মতো ২০১৬ সালে বিশ্বের অন্যান্য দেশের রাজনীতি, অর্থনীতি, সংস্কৃতি সব সব অঙ্গণ ছিল নানা ঘটনায় বর্ণিল। গত বছর বিভিন্ন দেশের বিমান দুর্ঘটনায় পড়েছে। নিহত হয়েছে বহু মানুষ। বিশ্ব রাজনীতির টাল-মাটাল পরিস্থিতি নানা দিক থেকেই আলোচিত করেছে ২০১৬ সাল। বছরের একেবারে শেষে এসে যুক্তরাষ্ট্রের ৩৫ জন রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কারের মতো অভাবনীয় ঘটনাও ঘটতে দেখা গেছে। নতুন বছরে শুভ কিছুর প্রত্যাশায় বিশ্ববাসীর সঙ্গে বাংলাদেশের মানুষও।

ইংরেজি তারিখের মতো আন্তর্জাতিক ব্যাপ্তি নিয়ে আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে ক্রমেই ঘনিষ্ঠ হচ্ছে ইংরেজি নববর্ষ উৎসবও। বিদায়ী ‘২০১৬’ সালের শেষ দিনেই শুরু হয়েছে নতুন বছরের শুভেচ্ছা বিনিময়, একে অপরকে বলছেন ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার।’ মেইল, এসএমএস, ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে, সাক্ষাতে ‘২০১৭’ এর শুভেচ্ছা বিনিময় চলবে রবিবার সারা দিনই।

শনিবার মধ্যরাত (থার্টিফাস্ট নাইট) থেকেই শুরু হয় নতুন বছরকে স্বাগত জানিয়ে নানান অনুষ্ঠান। তবে দেশে জঙ্গী উত্থানের প্রেক্ষাপটে রাতে উন্মুক্ত স্থানে আনন্দ উদযাপনে বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে সরকার। এ ছাড়া বিগত সময়ে দেশের অভিজাত পাড়ায় থার্টিফাস্ট নাইটে তরুণ-তরুণীদের উচ্ছ্বাস-উদ্দীপনা কখনো শালীনতার মাত্রাও অতিক্রম করে গেছে। এখন এ রাতটি এলে পুলিশ বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করে থাকে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, ফ্রান্স, রাশিয়া সহ বিশ্বের উন্নত দেশগুলোতে কোটি কোটি ডলার খরচ করা হয় এই নববর্ষ উৎসবকে কেন্দ্র করে। বিশ্বব্যাপী ৩১ ডিসেম্বর দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে আতশবাজীর বর্ণিল রঙে রঙ্গিন হয়ে উঠে রাতের আকাশ।

দেশবাসীকে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা

ইংরেজি নববর্ষ উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আলাদা বাণী দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি দেশবাসীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে বাণীতে বলেন, ‘বিগত বছরের সুঃখ-দুঃখ, আনন্দ-বেদনা ভাগাভাগি করে নতুন সম্ভাবনার পথে বাংলাদেশ এগিয়ে যাক- খ্রিস্টীয় নববর্ষে এ প্রত্যাশা করি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের সামাজিক, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে নতুন প্রত্যাশা নিয়ে আসে খ্রিস্টীয় নববর্ষ। অতীত অর্জন ও সাফল্যকে ভিত্তি করে উন্নতি ও সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাব- এ হোক নতুন বছরে সকলের অঙ্গীকার। খ্রিস্টীয় নববর্ষ ২০১৭ সবার জীবনে আনন্দ ও কল্যাণ বয়ে আনুক- এই কামনা করছি।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাণীতে বলেছেন, দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন, সংবিধান ও গণতান্ত্রিক ধারা রক্ষা এবং জাতিকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত করার ক্ষেত্রে ২০১৬ সাল বাঙালি জাতির ইতিহাসে একটি গৌরবজ্জ্বল বছর।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘পুরাতন বছরের সব জঞ্জাল ধুয়ে-মুছে যাক নতুনের আহ্বানে। আমাদের সবার জীবন অনাবিল সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি বয়ে আনুক নতুন বছর, মহান সৃষ্টি কর্তার কাছে এ প্রার্থরা করি।’

অলটা্ইম ডিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকমের পাঠক, লেখক, বিজ্ঞাপনদাতাসহ সকল শুভানুধ্যায়ীকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা।

(Visited 7 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here