যাত্রা শুরু হল বাংলাদেশের ১ম Barisal FB Hospital .

0
269

Sharing is caring!

- Advertisement -

রির্পোটঃজাকারিয়া আলম দিপু.

বরিশাল – সমস্যা ও সম্ভাবনা ফেসবুক গ্রুপ এর মাধ্যমে এক বছরের  বেশী সময় ধরে বরিশাল এর নাগরিকবৃন্দের বিভিন্ন সমস্যা সমাধান করে যাচ্ছে।এবার Barisal FB Hospital এর মাধ্যমে বরিশালবাসীর স্বাস্থ্য সমস্যার সমাধান করা হবে ।

আজ দুপুর ১২টায় টায় উদ্ভোধন করে বরিশারের জেলা প্রশাসক ডঃ গাজী মোঃ সাইফুজ্জামান।আরো উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক ডাঃ শাহআলম তালুকদার, ডাঃ বনলতা, ডাঃ শাহিদা বেগম,মিডিয়া ব্যক্তি এম আর প্রিন্স,সংগঠক মারুফ হোসেন,দূর্বার তারুণ্যর সভাপতি জাকারিয়া আলম দিপু,বরিশাল ফ্রিলান্সার সভাপতি  অলিউর রহমান সহ বরিশালের সম্মানিত  নাগরিক সাংবাদিকবৃন্দ।

এই গ্রুপ এ ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকজন সম্মানিত বিশেষজ্ঞ ডাঃ যুক্ত হয়েছেন, যাঁরা ভিডিও কনফারেন্স ও গ্রুপে পোস্টকৃত স্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যার সমাধানে বিনামূল্যে পরামর্শ দেবেন ।
পর্যায়ক্রমে বরিশালের অন্যান্য সম্মানিত বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ও ইন্টার্নি ডাক্তার যাঁরা আর্তমানবতার সেবায় বিনামূল্যে সেবা দিতে চান তাদের যুক্ত করার প্রয়াস অব্যাহত থাকবে ।
গ্রুপটির কার্যপ্রণালী:
ফেসবুক এখন সবচেয়ে জনপ্রিয় সহজ সোশ্যাল মিডিয়া । এর মাধ্যমেই চিকিৎসা সেবাকে
ডিজিটাইলেইজেশন করা হয়েছে । ফেসবুক এ বিনামূল্যেও প্রবেশ করা যায়।! তাই, এর মাধ্যমে চিকিৎসা সেবা নিতে এখন কোন টাকাই খরচ করতে হবে না ।
বরিশাল জেলার যে কেউ তার শারীরিক সমস্যার বিস্তারিত বিবরণ লিখে পোস্ট করতে পারেন এই গ্রুপে। তবে, নির্দিষ্ট ফরমেট ব্যবহার করতে হবে । যাতে ডাক্তারদের প্রয়োজনীয় সকল তথ্য পোস্ট থেকে পাওয়া যায় । গ্রুপ এ যুক্ত আছেন সম্মানিত বিশেষজ্ঞ ও ইন্টার্নি ডাক্তার । তাঁরা তাঁদের সুবিধা মত কেউ একজন পরামর্শ দেবেন । কোন টেস্ট করা লাগলে সেটা করতে বলবেন । টেস্ট রিপোর্ট কমেন্ট রিপ্লাই এ দিতে পারবেন রোগীগণ । অবস্থা গুরুতর মনে হলে হাসপাতালে বা সশরীরে ডাক্তার এর কাছে যাবার পরামর্শ দিবেন ।
পরামর্শ পাওয়ার প্রক্রিয়ায় গতিশীলতা আনয়নের লক্ষ্যে একটি লিস্ট করা হবে ।
যাতে উল্লেখ থাকবে কে, কখন গ্রুপে সম্পূর্ণরূপে এক্টিভ থাকবেন ।
৭ দিনে মোট ১৬৮ ঘন্টা । ১৬৮ জন নিবেদিত প্রাণ ডাঃ সপ্তাহে মাত্র ১ ঘণ্টা করে সময় দিলেই ২৪ ঘন্টা ডাক্তার পাওয়া যাবে গ্রুপটিতে ।
এছাড়াও বরিশাল এর প্রতিটি ইউনিয়নে রয়েছে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার । যেখানে ভিডিও কনফারেন্স করার যাবতীয় উপকরণ রয়েছে । সপ্তাহে ১ দিন নির্দিস্ট সময়ে গ্রামের রোগীগণ সেখানে উপস্থিত হবেন । যে কোন একজন ডাঃ ওই সময়ে লাইভ এ আসবেন । এটা ফেসবুক ভিডিও কল কিংবা স্কাইপ দিয়ে করা যেতে পারে। রোগীরা সরাসরি ডাঃ এর সাথে কথা বলতে পারবেন এবং পরামর্শ নিতে পারবেন । একজন ডাঃ সপ্তাহে কমপক্ষে ১ দিন ১ ঘণ্টার জন্য লাইভ সাপোর্ট দিয়ে সহায়তা করতে পারেন । এর মাধ্যমে প্রত্যন্ত গ্রামের হত দরিদ্র মানুষ যারা ইন্টারনেট তথা প্রযুক্তির ছোঁয়া থেকে বঞ্চিত তাড়াও উপকৃত হবেন । যেখানে ইন্টারনেট সমস্যা সেখানে ফোন এর মাধ্যমে সেবা প্রদান করা হবে । অনেক ডাক্তারই আছেন যারা গ্রামে গিয়ে গরিব মানুষদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিতে চান কিন্তু গ্রাম এ যাওয়া, থাকা এটা বেশ সময় সাপেক্ষ ও কষ্টকরও বটে । কিন্তু, এই ডিজিটাল পদ্ধতিতে সেবা প্রদান করলে তাঁকে নিজের বাসা থেকেও বের হতে হচ্ছে না ।
ফলে অনেকেই উৎসাহী হচ্ছেন ।
এই পদ্ধতির ফলে ডাক্তার ও সাধারণ জনগণের মধ্যে একটু সেতু বন্ধন রচনা হবে ।
নতুন ডাক্তারদের সহজেই পরিচিত হবার সুযোগ তৈরি হয়েছে । ইন্টারনি ডাক্তার যারা ইন্টারনি শেষ করে বের হয়ে যাবেন তাদের দায়িত্ব থাকবে জুনিয়র দের গ্রুপে যুক্ত করার। ফলে দিনে দিনে গ্রুপটি সমৃদ্ধ হয়ে উঠবে । কোন দিনই সেবা প্রদান কার্যপক্রমে স্থিতিশীলতা আসবে না । সারাদেশ এই পদ্ধতিতে সেবা দেওয়া গেলে স্বাস্থ্য সেবা খাতে বিপ্লব সাধিত হতে পারে ।
সকলের অংশগ্রহণ ও সহযোগিতা কাম্য।

Barisal FB Hospital এর উদ্ভাবনকারী অলিউর রহমান বলেন, এটি বাস্তবায়ন হলে বাংলাদেশ াারো এক ধাপ এগিয়ে যাবে ডিজিটাল করনে।ফলে দালাল মুক্ত হবে চিকিৎসা ক্ষেত।

গ্রুপ লিংকঃ Barisal FB Hospital

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here