বরিশালের ১১টি জেলার চেক পোস্টসহ দিবারাত্রি টহলের পাশাপাশি গোয়েন্দা নজরদারী অব্যাহত রেখেছে র‌্যাব-৮

একাদশ সংসদ নির্বাচনে হামলা ও সহিংসতা রোধকল্পে বিশেষ নিরাপত্তায়

0
56

র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই ডাকাত, জলদস্যু/বনদস্যু, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, জঙ্গি দমন, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার, মাদক ব্যবসায়ী ও প্রতারকচক্রসহ বিভিন্ন অপরাধীদের গ্রেপ্তারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। গোয়েন্দা নজরদারী ও আভিযানিক কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় এ ধরণের অপরাধ নিয়ন্ত্রণে র‌্যাব ইতিমধ্যেই বিশেষ সফলতা অর্জনে সক্ষম হয়েছে।

- Advertisement -

এরই ধারাবাহিকতায় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে বিশেষ নিরাপত্তার অংশ হিসেবে র‌্যাব-৮, বরিশাল এর আওতাধীন ১১ টি (বরিশাল, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, ভোলা, পটুয়াখালী, বরগুনা, ফরিদপুর, রাজবাড়ী, গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর এবং শরীয়তপুর) জেলায় বিশেষ নিরাপত্তার অংশ হিসেবে র‌্যাব-৮ এর দায়ীত্বপূর্ণ এলাকায় গত ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখ হতে অদ্যবদি চলমান অবৈধ অস্ত্র, গোলাবারুদ এবং মাদকের চালান রোধকল্পে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট সমুহে বিশেষ চেক পোস্ট স্থাপন, অবৈধ অনুপ্রবেশ প্রতিহত করার লক্ষ্যে নগরীর বিভিন্ন আবাসিক হোটেল সমুহের উপর গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধি এবং জুম্মা’র নামাজ চলাকালিন মুসুল্লিদের নিরাপত্তা প্রদান ও নিরাপত্তার বিষয়ে আশ্বস্ত করা হয়।

এছাড়াও সরকারী স্থাপনার নিরাপত্তাসহ নির্বাচনী এলাকার সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখতে র‌্যাব-৮ দিবারাত্রি টহল অব্যহত রেখেছে।র‌্যাব-৮ এর এই কঠোর প্রয়াসে জনসাধারণের মনে স্বস্তি ফিরতে শুরু করেছে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে র‌্যাবের এই নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা বলয় অব্যাহত থাকবে। একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে ঘিরে সকল ধরণের নাশকতার বিরুদ্ধে র‌্যাব সর্তক অবস্থানে মাঠে রয়েছে। যে কোন ধরনের পরিস্থিতি মোকাবেলায় র‌্যাব-৮ সর্বদা প্রস্তুুত। নির্বাচন উপলক্ষ্যে কোন দুস্কৃতিকারী, সন্ত্রাসী, অরাজনৈতিক জনগণের জানমালের নিরাপত্তা নস্যাত করার চেষ্টা করলে তাদের বিরুদ্ধে র‌্যাব-৮ কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here