Home প্রচ্ছদ বিসিসির হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার দুর্ণীতি ফাঁশ, কোটি টাকা আত্মসাত, তদন্তে দুদক

বিসিসির হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার দুর্ণীতি ফাঁশ, কোটি টাকা আত্মসাত, তদন্তে দুদক

14
0
SHARE

Sharing is caring!

বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে দূর্ণীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। তিনি ভূয়া ব্যাংক একাউন্ট খুলে জালিয়াতি করে এক ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের প্রায় এক কোটি টাকা আত্মসাত করেছেন।

ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স সোহেল ইাঞ্জনিয়ার্স এর স্বত্তাধীকারী গোলাম হোসেন লিখিত অভিযোগ করে জানান, গত ২৫ আগস্ট ২০১৫ এ বিসিসি/ইডি/২৬/১৫ দরপত্র বিঞ্জপ্তির ২নং ক্রমিকে নগরীর চৌমাথা বাজার থেকে আমতলা মোড় পর্যন্ত সিসি ক্যামেরার কাজ পান তিনি। কাজ শেষ করে বিসিসি কর্তৃপক্ষের কাছে তার পাওনা ৮৮লক্ষ ২৩হাজার ৪শত ৯৬ (৮৮২৩৪৯৬) টাকার বিল চাইতে গেলে হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা মশিউর রহমান তার সাথে বিভিন্নভাবে টালবাহানা শুরু করে।

পরবর্তিতে খোজ নিয়ে তিনি জানতে পারেন মশিউর রহমান মার্কেন্টাইল ব্যাংকের বরিশাল কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার শাখায় মেসার্স সোহেল ইঞ্জিনিয়ার্স প্রতিষ্ঠানের নামে ভূয়া ব্যাংক একাউন্ট খুলে চেকের মাধ্যমে ৮৮ লক্ষ ২৩ হাজার ৪শত ছিয়ানব্বই টাকার বিলটি জালিয়াতির মাধ্যমে উত্তোলন করেন। পরবর্তিতে বিষয়টি তিনি দূর্ণীতি দমন কমিশনকে লিখিত অভিযোগ করলে দূদক বিষয়টি তদন্ত শুরু করেন। বর্তমানে অভিযোগের বিষয়টি দূদক তদন্ত করছে।

এর আগেও তার বিরুদ্ধে ঠিকাদারের বিলের ভ্যাট টাক্স্র সরকারের কোষাগারে না দিয়ে আত্বসাত করার মত গুরুতর অভিযোগ রয়েছে।

এ ব্যাপারে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের সচিব মোঃ ইসরাইল হোসেন বলেন, তাঁর বিরুদ্ধে দূর্ণীতিসহ আরো অনেক অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে আমাদের কাছে। তাঁর ভিত্তিতে বর্তমান মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ ইতিমধ্যে তাকে ওএসডি করেছে। সকল দূর্ণীতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধে সোচ্চার আমাদের বর্তমান সিটি কর্পোরেশন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here