টাইব্রেকারে জিতে সেমিতে ব্রাজিল

0
45

Sharing is caring!

- Advertisement -

বড় এক ফাঁড়া গেল ব্রাজিলের। ঘরের মাঠে কোপা আমেরিকায় কোয়ার্টার ফাইনালে বিদায়ের ঘণ্টা প্রায় বেজে গিয়েছিল সেলেকাওদের। নির্ধারিত ৯০ মিনিটের পর যোগ হয় আরও প্রায় আট মিনিট। তারপরও গোল করতে পারেনি কোন দল। ম্যাচের ৫৮ মিনিট লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন প্যারাগুয়ের এক ফুটবলার। সে সুযোগও নিতে পারেনি ব্রাজিল।

ভাগ্য যেন ব্রাজিলের বিপক্ষেই ছিল। টাইব্রেকার বড় শঙ্কা হয়ে এসেছিল তাদের জন্য। তবে গোলরক্ষক অ্যালিসন বেকারের দুর্দান্ত সেভে টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলে জয় পেয়েছে ব্রাজিল। ঘরের মাঠে উঠে গেছে কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালে। ২০০৭ সালের পর কোপার শিরোপা জয়ের আশা বাঁচিয়ে রেখেছে।

পুরো ম্যাচে ব্রাজিল বলের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে খেলেছে। ম্যাচের ৭০ ভাগ বল পায়ে রাখে। গোল মুখে শট নেয় ১৬টি। অন্য দিকে গোলের লক্ষ্যে এবং বাইরে প্যারাগুয়ে শট নেয় মাত্র দুটি। তাদের মূল লক্ষ্য ছিল ব্রাজিলকে গোলকরা থেকে বিরত রাখা। ১০ জনের দলে পরিণত হওয়ার পর সেটা আরও জোরে সোরে চেষ্টা চালায় তারা। ম্যাচে শেষ পর্যন্ত প্যারাগুয়ে ডিফেন্ডাররা সফল হন। তবে গোলরক্ষক অ্যালিসনের কাছে হেরে যান ফার্নান্দেজ।

টাইব্রেকারে প্রথম শটটাই ঠেকিয়ে দেন লিভারপুলের হয়ে দুর্দান্ত মৌসুম কাটানো ব্রাজিল গোলরক্ষক অ্যালিসন। পরের তিনটি শটই জালে জড়ায় দু’দল। কিন্তু ব্রাজিল চতুর্থ শটটা মিস করে। চার শট নিয়ে দু’দলের গোল দাঁড়ায় ৩-৩। সুযোগ হারান রবার্তো ফিরমিনো। তবে সুযোগট ঠিক মতো নিতে পারেনি প্যারাগুয়ে। শেষ শটটা আবার মিস করেন প্যারাগুয়ে ফুটবলার গঞ্জালেস। ব্রাজিল স্ট্রাইকার গ্যাব্রিয়েল জেসুস সুযোগটা কাজে লাগান। ব্রাজিলের শেষ শটটা জালে জড়িয়ে দলকে সেমিফাইনালে তোলেন তিনি। কোয়ার্টার ফাইনাল বাধা টপকালেও তিতে এবং নেইমারবিহীন তার দলের খেলা নিয়ে প্রশ্ন উঠে গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here