ভারতীয় হাইকমিশনারকে বিসিসি মেয়র সাদিকের সংবর্ধনা

0
16

Sharing is caring!

- Advertisement -

বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ’র পক্ষ থেকে ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশকে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। শনিবার (১২ অক্টোবর) দিবাগত রাতে বরিশাল নগরের হোটেল গ্রান্ড পার্কে আয়োজিত এক নৈশ ভোজ অনুষ্ঠানে এ সংবর্ধনা দেয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সিটি করপোরেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা বেলায়েত হাসান বাবলু জানান, সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ ভারতীয় হাই কমিশনারকে উপহার হিসেবে সিম্বলি সিটি কি (নগরের প্রতিকী চাবি), জামদানি শাড়ি উপহার দেন। পাশাপাশি আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে প্রতিকী পিতলের নৌকা দেয়া হয়। জনসংযোগ কর্মকর্তা আরো জানান, নৈশ ভোজের এ আয়োজনে বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার মুহাম্মদ ইয়ামিন চৌধুরী, বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজ শফিকুল ইসলাম, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মোঃ শাহাব উদ্দিন খান, র‌্যাব ৮ অধিনায়ক আতিকা ইসলামসহ নগর ভবনের কর্মকর্তা-কাউন্সিলরবৃন্দ, স্থানীয় জেলা ও বিভাগীয় প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ ভারতীয় হাইকমিশনারকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান এবং ভারতীয় হাই কমিশনারও তাদের সাথে কুশল বিনিময় করেন।

এসময় ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে ফলপ্রসু আলোচনা হয়েছে। এরমধ্য দিয়ে উভয় দেশের সম্পর্কের আরো উন্নয়ন ঘটবে। বাংলাদেশে বিনিয়োগ বাড়বে।

তিনি আরো বলেছেন, শিল্পায়নের জন্য বাংলাদেশকে গোটা বিশ্ব অনেক গুরুত্ব দিয়ে দেখছে। এদেশের অগ্রগতি বিশ্বকে আকর্ষণ করছে। স্মরণকালের মধ্যে এখন ভারত বাংলাদেশের মধ্যে সু-সম্পর্ক বিরাজ করছে। দ্বি-পাক্ষিক আলোচনার মধ্য দিয়ে অনেক কঠিন বিষয়ে সমাধান করা হয়েছে। ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশ বরিশালে এসে অভিভূত হয়েছেন বলে জানিয়ে উপস্থিতিদের উদ্দেশ্যে বলেছেন অনেক গুনী ব্যক্তির এই বরিশালে এসে নিজেকে ধন্য মনে করছি। পাশাপাশি বরিশাল নগরীকে নিয়ে মেয়রের ভবিষ্যত পরিকল্পনার ভূয়সী প্রশংসা করে তিনি।

পাশাপাশি মেয়র যে স্মার্ট সিটি গড়ার স্বপ্ন দেখছেন তা অত্যন্ত প্রশংসনীয় একটি উদ্যোগ আখ্যা দিয়ে হাইকমিশনার শ্রীমতী রীভা গাঙ্গুলি দাশ ভারতের পক্ষ থেকে সবধরণের সহযোগিতা করার আশ্বাস দিয়েছেন। এসময় মেয়র স্বাধীনতা যুদ্ধে বন্ধু প্রতীম দেশ ভারতের ভূমিকা ও ৭৫ পরবর্তী সময়ে বঙ্গবন্ধুর পরিবার ও তাদের স্বজনদের ভারতে আশ্রয়ের বিষয়টি তুলে ধরেন। এসময় ভারতীয় হাই-কমিশনার শ্রীমতী রীভা গাঙ্গলি দাশের স্বামী প্রশান্ত কুমার দাশসহ ভারতীয় হাই কমিশনের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here