খুলনায় দাকোপে শিক্ষকের ঘুসিতে মেধাবী ছাত্রী আহত

0
82

Sharing is caring!

- Advertisement -

দাকোপ(খুলনা)প্রতিনিধিঃ দাকোপ উপজেলা সদর চালনা পৌরসভার আনন্দ নগর
সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সুরাঞ্জন বিশ্বাসের ঘুসিতে পঞ্চম
শ্রেনীর মেধাবী ছাএী দৃষ্টি জোয়াদ্দার (১১) আহত। মুমূর্ষু অবস্থায় দাকোপ
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্রেক্রে ভর্তি। পঞ্চম শ্রেনীর মেধাবী ছাএী দৃষ্টি জোয়াদ্দার
(১১) এর পিতা কার্তিক জোয়াদ্দার বলেন, প্রতিদিনের ন্যায় গত রবিবার আমার
মেয়ে স্কুলে যায়।

আনুমানিক ১১টার দিকে স্কুলের ছাএরা আমার বাসায় খবর দেয়
আমার মেয়ে অসুস্থ্য হয়ে পরেছে। খবর পেয়ে স্কুলে ছুটে যাই। যেয়ে দেখি আমার
মেয়ে প্রচন্ড ব্যাথায় কাতরাচ্ছে। দ্রুত চালনা বাজারে ডাঃ হরিদাশ বাবুর নিকট
নিয়ে আসলে সে আমাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্রেক্রে পাঠিয়ে দেন। স্বাস্থ্য
কমপ্রেক্রে কথা হয় দৃষ্টি জোয়াদ্দার (১১)’র সাথে সে প্রচন্ড ব্যাথা ভরা কন্ঠে বলেন,
স্যার আমার নিকট কি যেন চাইলেন আমি বুঝতে না পারায় আমার তল পেটে প্রচন্ড
জোড়ে ঘুসি মারে। আমার বাবা-মা স্কুলে যেয়ে আমাকে ডাক্তারের নিকট নিয়ে
আসে। মুঠোফোনে কথাহয় বিদ্যালয় ম্যনেজিং কমিটির সভাপতি মোঃ অহিদ
শেখের সাথে তিনি বলেন, খবর পেয়ে ছুটে যাই স্বাস্থ্য কমপ্রেক্রে এবং দৃষ্টি
জোয়াদ্দারের চিকিৎসার খোজখবর নেই।

দৃষ্টি জোয়াদ্দারকে স্বাস্থ্য কমপ্রেক্রে দেখতে যান চালনা পৌর মেয়র সহ কাউন্সিলর।
এসময় পৌর মেয়র সনত কুমার বিশ্বাস মেধাবী ছাএী দৃষ্টি জোয়াদ্দারের
চিকিৎসার খবর নেন। শিক্ষক কতৃক মেধাবী ছাএীর আহতের খবর শুনে ছুটে যান
সার্চ মানবাধীকার সোসাইটি বাংলাদেশ এর দাকোপ উপজেলা কমিটির
নির্বাহী পরিচালক মোঃ রায়হান শেখ। এসময় তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন,
শিক্ষক কতৃক ছাএীর পেটে ঘুসি কোন ভাবেই মেনে নেওয়া যাায়না। দ্রুত
শিক্ষকের শাস্তির দাবী জানিয়ে বলেন, প্রয়োজনে শাস্তির দাবীতে আমাদের
সংগঠনের পক্ষ থেকে মানব-বন্ধন করা হবে। তদন্ত পূর্বক আইনের আওতায় প্রধান
শিক্ষক সুরাঞ্জন বিশ্বাসের শাস্তির দাবী জানান এলাকাবাসী।

(Visited 1 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here