ভোলায় প্রেমের টানে কিশোরী ঘর ছাড়বে, ভয়ে শিকলে বেঁধে রেখেছেন বাবা

0
24

Sharing is caring!

ভোলার লালমোহন উপজেলায় প্রেমের টানে কিশোরী ঘর ছাড়ার ভয়ে মারধর করে শিকল দিয়ে বেঁধে রেখেছেন বাবা-মা।

- Advertisement -

পরে অভিযোগ পেয়ে লালমোহন থানা পুলিশ ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে। এসময় আটক করা হয়েছে কিশোরীর বাবা আবুল কালামকে।

বৃহস্পতিবার উপজেলার পশ্চিম চরউমেদ ইউনিয়নের রায়পুরা কান্দি গ্রাম থেকে ৮ম শ্রেণী পড়ুয়া মাদ্রাসা ছাত্রীকে উদ্ধার করে ভোলা সেভ কাস্ট্ররিতে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় কিশোরীর বাবা ও মা কে আসামী করে মামলা দায়ের করেন স্থানীয় গ্রাম পুলিশ সফিকুল ইসলাম।

লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ মাকসুদুর রহমান মুরাদ জানান, কিশোরীকে তার ঘরে মারধর করে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে এমন অভিযোগ পেয়ে তাকে উদ্ধার করা হয়।

চরফ্যাশনের জিন্নাগড় এলাকার এক ছেলের সাথে কিশোরীর বিয়ে হয়েছে বলে দাবী করে কিশোরী। কিন্তু কোন প্রমাণাধি নেই।

স্থানীয় সূত্র জানায়, কিশোরীর ভগ্নিপতির বাড়ি চরফ্যাশনের জিন্নাগড় এলাকায়। ওই বাড়িতে আসা যাওয়ার সূত্রে পাশ্ববর্তী এক ছেলের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক হয়। তাদের বিয়েও হয় বলে কিশোরী দাবী করে। দুই সপ্তাহ আগে ওই ছেলের বাড়িতে গিয়ে অবস্থান করে কিশোরী। পরে স্থানীয়রা কিশোরীকে তার বাবা-মায়ের কাছে তুলে দেয়। সেখান থেকে বাড়িতে এনে তাকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়।

(Visited 1 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here