Home আপরাদ অপারেশন ‘সান ডেভিলের’ মামলা ডিবিতে হস্তান্তর

অপারেশন ‘সান ডেভিলের’ মামলা ডিবিতে হস্তান্তর

169
0
SHARE

Sharing is caring!

রাজশাহী অফিস : গোদাগাড়ী উপজেলার বেনীপুরে ‘জঙ্গি বাড়িতে’ অপারেশন ‘সান ডেভিল’ চালানোর পর সন্ত্রাসবিরোধী আইনে দায়ের করা মামলাটি জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখায় (ডিবি) হস্তান্তর করা হয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মোয়াজ্জেম হোসেন ভূঁঞার নির্দেশে শনিবার (২০ মে) মামলাটি ডিবিতে হস্তান্তর করা হয়। আগের তদন্ত কর্মকর্তা গোদাগাড়ী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আলতাফ হোসেনের কাছ থেকে এদিন মামলাটি বুঝে নেন জেলা ডিবির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান।

মামলা বুঝে নেওয়ার পর ডিবি ওসি আতাউর জানান, মামলার প্রথম তদন্ত কর্মকর্তার তদন্তে এবং জঙ্গি বাড়ি থেকে আত্মসমর্পণ করা নারী সুমাইয়া খাতুনের কাছ থেকে এরই মধ্যে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। পুরানো তথ্যের ওপর ভর করে তিনি নতুন করে মামলাটির তদন্ত কাজ শুরু করেছেন।

প্রসঙ্গত, গত ১১ মে ভোররাতে স্থানীয় বেনীপুর গ্রামের ভ্রাম্যমান কাপড় ব্যবসায়ী সাজ্জাদ আলীর বাড়িতে জঙ্গি আস্তানায় অপারেশন ‘সান ডেভিল’ নামে অভিযান চালায় পুলিশের একটি বিশেষ দল। অভিযানের সময় আত্মঘাতি বোমার বিস্ফোরণে নিহত হয় সাজ্জাদ আলীর ছেলে আল-আমিন (২১)। এছাড়া গুলি ও বোমার স্প্রিন্টারের আঘাতে নিহত হয় সাজ্জাদ আলী (৫০), তার স্ত্রী বেনী আক্তার (৪৫), তাদের মেয়ে কারিমা খাতুন (১৭) এবং বহিরাগত জঙ্গি আশরাফুল ইসলাম (২৪)।

ওই সময় জঙ্গিদের আক্রমণে নিহত হন সেখানে দ্বায়িত্বরত ফায়ার সার্ভিসের এক কর্মী। আহত হন পুলিশের চার সদস্য।

ঘটনার সময় আত্মসমর্পণ করেন সাজ্জাদের বড় মেয়ে সুমাইয়া খাতুন (২৫) তার দুই শিশু সন্তান।

ওই অভিযানে উদ্ধার হয় বোমা, বোমা তৈরির উপকরণ, জিহাদী বই, পিস্তল, গুলি ও ম্যাগজিন। এসব ঘটনায় ১৩ মে গোদাগাড়ী থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে একটি মামলা দায়ের করেন ওই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নাইমুল হক।

এ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে পরদিন সুমাইয়াকে আদালতে তোলেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আলতাফ হোসেন। ওইদিন তিনি সুমাইয়াকে ১০ দিনের রিমান্ডে নেন। এরপর ৬ সদস্যের পুলিশি বোর্ড গঠন করে সুমাইয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছিল। এরই মধ্যে আলোচিত এই মামলাটি ডিবিতে হস্তান্তর করা হলো।

এ ব্যাপারে পুলিশি বোর্ডের প্রধান জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার (ডিএসবি) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমিত চৌধুরী বলেন, ‘আগের তদন্ত কর্মকর্তা বোর্ড থেকে বাদ পড়েছেন। পদাধিকার বলে তিনি এখন বোর্ডের সদস্য এবং নতুন তদন্ত কর্মকর্তা। তিনি তার প্রয়োজনমতো সুমাইয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন।’

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here