Home ছবি বরিশাল নগরবাসীর নিরাপত্তায় সিসি ক্যামেরা ও স্ট্রিট লাইটে আধুনিকায়ন!

বরিশাল নগরবাসীর নিরাপত্তায় সিসি ক্যামেরা ও স্ট্রিট লাইটে আধুনিকায়ন!

23
0
SHARE

Sharing is caring!

নগরবাসীর নিরাপত্তায় সিসি ক্যামেরা ও স্ট্রিট লাইটে আধুনিকায়ন!
নগরীতে লাগানো হবে সফটওয়ার দ্বারা নিয়ন্ত্রিত এল ই ডি লাইটের সাথে ফেইস ডিটেক্টর, সিসি ক্যামেরা ও সাউন্ড সিস্টেম। দশ বছরে বিসিসির সাশ্রয় হবে প্রায় পনের(১৫) কোটি টাকা।

বরিশালের উন্নয়নের ইতিহাসে প্রতিনিয়ত এক একটা নতুন চমক নিয়ে আসছেন বরিশালের সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ । বরিশালের নগরী পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা ও সড়ক নির্মানে যেমন বরিশালবাসীকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। ঠিক তেমনি রাতের আধার আলোকিত করতে আধুনিকতার ছোয়ায় চমক দেখাতে নগরীর প্রতিটি জায়গায় লাগানো হবে এল ই ডি লাইটের সাথে ফেইস ডিটেক্টর, সিসি ক্যামেরা ও সাউন্ড সিস্টেম । আজ বেলা ১২.০০টায় নগর ভবনে চায়না সাউদার্ন পাওয়ার গ্রীড এনার্জি ইফিসিএন্সী এন্ড ক্লিন এনার্জি কোং এর হি জিং ও এ্যালেন জিন নামক দুইজন প্রতিনিধির কাছে এক অভিনব প্রেজেন্টেশনে তুলে ধরা হয়েছে বরিশালের রাতের দৃশ্য। খুব দ্রুত ১০ বৎসরের চুক্তিতে বিসিসি স্বাক্ষর করতে যাচ্ছে উল্ল্যেখিত চায়নার কোম্পানির সাথে।

চায়না প্রতিনিধির সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত হয় যে, বরিশাল নগরীর প্রতিটি লাইট পোস্টে স্থাপন করা হবে অত্যাধুনিক এল ই ডি লাইট, যার সাথে সংযুক্ত থাকবে উন্নত মানের ফেইস ডিটেক্টর হাই রেজুলেশন সিসি ক্যামেরা, মাইক ও সাউন্ড সিস্টেম। এ আই প্রযুক্তি সম্পন্ন এ সকল ডিভাইজ গুলো নিয়ন্ত্রিত হবে সফটওয়ারের মাধ্যমে, যে কোন ধরনের যান্ত্রিক ত্রুটি আগাম জানিয়ে দিবে এই সফটওয়ারের সার্ভিসের এ্সএমএস এর মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে। যেহেতু প্রতিটি লাইটের সাথে সিসি ক্যামেরা ও মাইক থাকছে এর ফলে নগরবাসীকে যে কোন ম্যাসেজ জানানো যাবে অতিদ্রুত।

শহরের নিরাপত্তা হবে আরও শক্তিশালী। জনগন নির্বিঘ্নে দিনরাত নগরীতে বিচরণ করবে। অতি দ্রুত মন্ত্রণালয় কর্তৃক অনুমোদনের পরপরই ১০ বৎসরের চুক্তিতে স্বাক্ষর করতে যাচ্ছে উল্ল্যেখিত চায়নার কম্পানির সাথে। আর এই চুক্তি বাস্তবায়নের ফলে ১০ বৎসর চায়না কোম্পানী রক্ষানাবেক্ষন করায় বিসিসির নিজস্ব কোন অর্থ খরচ হবেনা। একই সাথে প্রতি বছর যে পরিমান অর্থ বিদ্যুৎ এর লাইট রক্ষণাবেক্ষন খাতে ব্যায় করা হত তারও আর দরকার হবেনা। এতে করে দশ বছরে বিসিসির প্রায় পনের(১৫) কোটি টাকা সাশ্রয় হবে।

যে স্বপ্ন বরিশালবাসী কোনদিন চিন্তাও করেনি তা অতি শীগ্রই বাস্তবে রুপান্তরীত হতে যাচ্ছে বরিশালের সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্ল্হ্ এর কার্যক্রম বাস্তবায়নের মধ্যদিয়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here