নকলমুক্ত বিসিএস পরীক্ষা আয়োজনে ১৭৫ ম্যাজিস্ট্রেট

0
42

Sharing is caring!

- Advertisement -

৪০তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি (এমসিকিউ) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৩ মে (শুক্রবার)। ঢাকায় ১৬৫টি কেন্দ্রে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত একযোগে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষা নিরবচ্ছিন্ন ও নকলমুক্ত করতে ১৬৫ কেন্দ্র পরিদর্শনে ১৭৫ জন ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দিয়েছে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (বিপিএসসি)।

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) পিএসসির সিনিয়র সহকারী সচিব নাজমা নাহার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ আদেশ জারি করা হয়।

আদেশে বলা হয়, ৪০তম বিসিএস পরীক্ষা ঢাকার ১৬৫টি কেন্দ্রে একযোগে আয়োজন করা হবে। ৩ মে (শুক্রবার) সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত পরীক্ষা চলাকালীন কেন্দ্রের ভেতরে ও বাইরের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার্থে প্রত্যেক কেন্দ্রে একজন করে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটসহ পিএসসির কন্ট্রোল রুমে অতিরিক্ত আরও ১০ জন বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডার কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করবেন।

এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটরা সাধারণ ক্ষমতাবলে মোবাইল কোর্ট আইন-২০০৯ এর ৫ ধারার বিধান মোতাবেক তাদের নামের পাশে বর্ণিত আইন অনুযায়ী পরীক্ষা চলাকালীন ক্ষমতা প্রদান করতে নিয়োগ করা হলো বলেও আদেশে উল্লেখ করা হয়।

আদেশে আরও বলা হয়, ঢাকার কেন্দ্রসমূহে নিয়োগকৃত এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটদের আগামী ২৪ এপ্রিল বিকেল ৩টায় পিএসসিতে সেমিনারে উপস্থিত হবেন। এছাড়া পরীক্ষার দিন দায়িত্ব পালন শেষে বিকেল সাড়ে ৪টায় পিএসসিতে রিপোর্ট করতে হবে।

নিয়োগপ্রাপ্ত ম্যাজিস্ট্রেটরা বর্তমানে রাজধানীর বিভিন্ন সরকারি সংস্থা দফতরে নিয়োজিত।

৪০তম বিসিএসে মোট ৪ লাখ ১২ হাজার ৫৩২ জন প্রার্থী আবেদন করেছেন। পিএসসিতে বিপুলসংখ্যক পরীক্ষার্থীর আবেদনের রেকর্ডও এটি। গত বছরের ১১ সেপ্টেম্বর ৪০তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে পিএসসি এবং ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে আবেদন গ্রহণ শুরু হয়।

৪০তম বিসিএসের মাধ্যমে মোট ১ হাজার ৯০৩ জন ক্যাডার নিয়োগ দেয়া হবে। ক্যাডার অনুসারে প্রশাসনে ২০০, পুলিশে ৭২, পররাষ্ট্রে ২৫, করে ২৪, শুল্ক আবগারিতে ৩২ ও শিক্ষা ক্যাডারে প্রায় ৮০০ জন নিয়োগ দেয়ার কথা রয়েছে। তবে এ সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে জানা গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here