মারধরের পর পা চাটতে বাধ্য করা হলো দলিত কিশোরকে

0
13

Sharing is caring!

ভারতের উত্তর প্রদেশের এক দলিত কিশোরকে লাঞ্ছিত করার ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। হতবাক করা ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, এক দলিত কিশোরকে মারধরে পর তাকে বেশ কিছুক্ষণ কানে ধরে বসিয়ে রাখা হয়। এরপর এক ব্যক্তির পা চাটতে বাধ্য করা হয় তাকে।

সামাজিক মাধ্যমে ২ মিনিট ৩০ সেকেন্ডের ওই ভিডিও মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে গেছে। সেখানে দেখা গেছে এক দলিত কিশোরকে মাটিতে কান ধরে বসিয়ে রেখে শাস্তি দেওয়া হচ্ছে। সে সময় এক ব্যক্তিকে মোটরসাইকেলে বসে থাকতে দেখা যায়। সে এবং আশেপাশে আরও কিছু মানুষ ওই দলিত কিশোরকে লাঞ্ছিত করছিল এবং তা নিয়ে বেশ হাসাহাসি করছিল।

এক অভিযুক্ত তাকে ‘ঠাকুর’ বানান করতে বলেন এবং তাকে অপমান করেন। অপর এক অভিযুক্ত তাকে জিজ্ঞেস করতে থাকেন, আর এমন ভুল হবে? তবে ওই দলিত কিশোরের অপরাধ কি তা জানা যায়নি।

অপর একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, ওই দলিত কিশোরের বিরুদ্ধে গাঁজা বিক্রির অভিযোগ এনে মারধর করছে এক ব্যক্তি এবং তাকে এই কথা স্বীকার করতে বাধ্য করা হচ্ছে।

এদিকে ওই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর আটজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, এই ভিডিও গত ১০ এপ্রিলের। লাঞ্ছিত হওয়া কিশোরের অভিযোগের ভিত্তিতে অপরাধীদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

ওই কিশোর ১০ম শ্রেণীর ছাত্র। সে তার বিধবা মায়ের সঙ্গে থাকে। প্রাথমিক প্রতিবেদনে জানা গেছে, যারা তাকে হেনস্তা করেছে তাদের মধ্যেই কয়েকজনের ফসলের ক্ষেতে কাজ করে তার মা। ওই কিশোর তার মায়ের পাওনা টাকা চাইতে গেলেই তার সঙ্গে এমন আচরণ করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে।

যদিও তার বোন এ কথা অস্বীকার করেছে। তিনি জানিয়েছেন, এ কথা সত্যি নয়। তারা জানেন না যে, তাদের ভাইয়ের সঙ্গে কেন এমন করা হলো। ওই দলিত কিশোর নিজেও অভিযুক্তদের কাছে জানতে চেয়েছিল যে, তার সঙ্গে এমন কেন করছে তারা? কিন্তু তাকে মারধর করা হলেও তার কোনো কারণ জানানো হয়নি।

 

(Visited 6 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here