Home প্রচ্ছদ আয়ুর্বেদিক ও ইউনানী মেডিসিন বাংলাদেশে চিকিৎসা সেবায় বিশেষ অবদান রাখতে পারে !

আয়ুর্বেদিক ও ইউনানী মেডিসিন বাংলাদেশে চিকিৎসা সেবায় বিশেষ অবদান রাখতে পারে !

2151
0
SHARE
আয়ুর্বেদিক ও ইউনানী মেডিসিন বাংলাদেশে চিকিৎসা সেবায় বিশেষ অবদান রাখতে পারে !
আয়ুর্বেদিক ও ইউনানী মেডিসিন বাংলাদেশে চিকিৎসা সেবায় বিশেষ অবদান রাখতে পারে !

Sharing is caring!

স্টাফ রিপোর্টার ll

সর্বস্তরের মানুষের জন্য ইউনানী ও আয়ুর্ববেদিক মেডিসিন স্বাস্থ্যসম্মত গুণগত মানসম্পন্ন ও গুরুত্বপূর্ন শিল্প বিকাশ শীর্ষক সম্মেলন এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বেলা ১১ টার দিকে নগরীর অশ্বিনী কুমার হলে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ আয়ুর্বেদিক মেডিসিন ও ইউনানী মেডিসিন ম্যানুফ্যাকচারার্স এ্যাসোসিয়েশন ও মেডিসিনাল প্লান্টস এন্ড হারবাল প্রোডাক্টস বিজনেস প্রমোশনাল কাউন্সিল ও বাণিজ্য মন্ত্রনালয়ের যৌথ উদ্যোগে এ সেমিনার অনুষ্টিত হয়। গতকাল সকাল ১০ টায় নগরীর অশ্বিনী কুমার হল অডিটোরিয়ামে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ আয়ুর্বেদিক মেডিসিন ম্যানুফ্যাকচারাস এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডাঃ সেলিম মোঃ শাহ জাহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন-বরিশালের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আহসান হাবীব। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন-অমৃত লাল দে আয়ুর্বেদিক ও ইউনানী মহাবিদ্যালয়ের সভাপতি বিজয় কৃষ্ণ দে, বরিশালের ঔষধ তত্ত্বাবধায়ক তানভীর আহম্মেদ, কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিষ্ট সমিতির বরিশাল শাখার সভাপতি কাজী মফিজুল ইসলাম, বেলস ফার্মা (ইউনানী) লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক লিয়াকত আলী লিকু, বাণিজ্য মন্ত্রনালয়ের বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল এর প্রোগ্রাম এসিষ্ট্যান্ট ফাতেমা বিনতে রহমান, বাংলাদেশ আয়ুর্বেদিক ম্যানুফ্যাকচারাস এ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এবিএম মনিরুল ইসলামসহ অতিথিবৃন্দ।

সভায় প্রধান অতিথি বরিশাল অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আহসান হাবিব বলেন-বাংলাদেশের অর্থনৈতিক খাতকে আরও শক্তিশালী করতে ও ২০২১ সালের মধ্যে প্রধনমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন বাংলাদেশকে বিশ্বের বুকে মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে দাড় করাতে বাংলাদেশে উৎপাদিত আয়ুর্বেদিক মেডিসিন ও ইউনানী মেডিসিন বিশেষ অবদান রাখতে পারে। বাংলাদেশে এই ভেসজ শিল্পের জন্য রয়েছে অপার সম্ভাবনা। তার কারণ হচ্ছে বাংলাদেশের মাটির উর্বরতাকে কাজে লাগিয়ে দেশের মাটিতে ভেসজ ঔষধি গাছ চাষাবাদ করা সম্ভব। এর ফলে একদিকে সামাজিক বনায়নের মাধ্যমে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা হবে, অন্যদিকে ঔষধ শিল্পে ভেসজ গাছ ব্যবহারের মাধ্যমে ওষুধ উৎপাদন করে দেশের মানুষের মধ্যে স্বল্পমূল্যে মানবদেহে উপযোগী পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া মুক্ত বিশুদ্ধ ওষুধ তুলে দিতে পারবে। দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে আয়ুর্বেদিক ও ইউনানী ওষুধ রপ্তানী করে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব হবে বলে তিনি মনে করেন। তাই সকল সম্ভাবনার কথা চিন্তা করে বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে এই শিল্পের বিকাল ঘটাবার লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই খাতে উত্তরোত্তর সমৃদ্ধির লক্ষ্যে ভ্যাট মুক্ত করে দিয়েছেন।

সম্মেলনের বিশেষ অতিথি বেলস ফার্মা ইউনানী লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক লিয়াকত আলী লিকু বলেন-ইউনানী আয়ুর্বেদিক হারবাল ও ফার্মাসিউটিক্যালস বর্তমানে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের এলোপ্যাথিক মেডিসিন ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের আওতায় এনেছে সরকার। তাই এই মেডিসিন ‘‘ গুড ম্যানুফ্যাকচারিং প্রাকটিস’’ (জিএমপি) মেনে মান নিয়ন্ত্রন সঠিক রেখে ঔষধ উৎপাদনের জন্য সম্মেলনে উপস্থিত বরিশালের হাকিম ও কবিরাজদের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি আরও বলেন- বরিশালে ভেসজ ঔষধ ভিত্তিক চিকিৎসা প্রসারের লক্ষ্যে ব্যক্তি উদ্যোগে বরিশালের কাশিপুরে অমৃত লাল দে আয়ুর্বেদিক ইউনানী মহাবিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা হয়েছে। তবে উপস্থিত প্রধান অতিথির মাধ্যমে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান যাতে অচিরেই দক্ষিনাঞ্চলে একটি ইউনানী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল স্থাপন করে সরকার। তাহলে আয়ুর্বেদিক ও ভেসজ ঔষধ উৎপাদনে গবেষনার মাধ্যমে এই খাতে অনেক উন্নতি করা সম্ভব। বিশ্বের অনেক দেশে ভেসজ ও ইউনানী ঔষধ রপ্তানি করে অনেক বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করছে। এই খাতটি প্রতিষ্ঠিত হলে বাংলাদেশের বেকারত্ব দূরীকরণে আগামী দিনে অগ্রগামী ভূমিকা পালন করতে সক্ষম হবে। সর্বোপরি আগত সকলকে এই শিল্পের বিকাশের জন্য প্রত্যন্ত অঞ্চলের জনগনকে বেশি বেশি ঔষধি গাছ চাষাবাদ করার জন্য আগত হেকিম-কবিরাজদের উদ্ধুদ্ধ করার আহ্বান জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here