রোজাদারের ব্যায়াম

0
199

Sharing is caring!

- Advertisement -

স্বাস্থ্য ডেস্কঃ
রোজা প্রতিটি মুসলিম নর-নারীর জন্য মহান সৃষ্টিকর্তার অপার মহিমান্বিত এক নিয়ামত। যারা স্বাভাবিক সময়ে প্রতিদিন খানিকটা ব্যায়াম করেন বা হাঁটা-চলা করেন তারা পবিত্র রমজানেও ব্যায়াম করতে পারেন। তবে এই ব্যায়াম অবশ্যই ইফতারির পর করতে হবে। রোজা থেকে ব্যায়াম করলে শরীর থেকে প্রচুর পানি বের হয়ে শরীর দুর্বল হয়ে পড়তে পারে। তাই ইফতারির পর ব্যায়াম করা উত্তম। তবে যারা রোজা রেখে হালকা ব্যায়াম করতে চান তাদের অবশ্যই ব্যায়ামের পর প্রচুর পানি পান করতে হবে।

এছাড়া যারা রোজা রেখে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করেন তাদের এমনিতেই ব্যায়ামের কাজ হয়ে যায়। পাশাপাশি সারা মাস অভুক্ত থাকার কারণে শরীরের বাড়তি মেদও কমে। তাই রোজার মাসে যদি কেউ ব্যায়াম বা শরীর চর্চা করতে না চান তাতে কোনো ক্ষতি নেই। পাশাপাশি আর একটি কথা মনে রাখা দরকার যেসব রোজাদারগণ ইফতার ও সেহেরিতে অধিক আহারে অভ্যস্ত তাদের রমজানে শরীরের বাড়তি ওজন নাও কমতে পারে।

তাই রোজায় যারা ব্যায়াম করতে চান তারা হালকা ব্যায়াম করবেন এবং প্রয়োজনীয় সুষম খাবার বা ব্যালন্স ডায়েট আহারের চেষ্টা করবেন। খাবারে প্রচুর আঁশ জাতীয় খাবার রাখা ভালো। আর একটি কথা মনে রাখবেন যারা রোজা থেকে ব্যায়াম করতে চান তাদের খুবই হালকা ব্যায়াম করা উচিত এবং আধা ঘণ্টার পরিবর্তে ১৫/২০ মিনিট ব্যায়াম করলেই চলে। কারণ অধিক ব্যায়ামে হাইপোগ্লাইসেমিক বা রক্তের সুগার কমে যাওয়ার করার ঝুঁকি থাকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here